Thursday - 2 - July - 2020

মেসির সতীর্থকে নিয়ে কাল এশিয়ায় অভিষেক বসুন্ধরার

Published by: সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক |    Posted: 3 months ago|    Updated: 3 months ago

An Images

সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক :

বিশ্ব জুড়ে এখন করোনাভাইরাস আতঙ্ক। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে গেছে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এশিয়া অঞ্চলের সব ম্যাচ। কিন্তু এএফসি কাপের খেলা এখনো বন্ধের কোনো নির্দেশনা আসেনি ফিফা থেকে। করোনা আতঙ্কের মধ্যেই আগামীকাল এএফসি কাপে অভিষেক হচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসের। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টসের বিপক্ষে এ ম্যাচে বসুন্ধরার হয়ে খেলবেন লিওনেল মেসির সঙ্গে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে খেলা হার্নান বার্কোসের। সঙ্গে ২০১৮ বিশ্বকাপ খেলা কোস্টারিকার দানিয়েল কলিনদ্রেস তো থাকছেনই। যথেষ্ট শক্তিশালী দল নিয়ে এএফসি কাপের শুরুটা রাঙিয়ে দিতে চায় বসুন্ধরা। যদিও মালদ্বীপের দলটি কিন্তু মোটেও হেলাফেলা করার কিছু নয়। তাদেরও আছে পাকিস্তান, মিশর, ভিয়েতনামের ফুটবলার। সবচেয়ে বড় কথা টিসি স্পোর্টসের হয়ে খেলবেন এশিয়ার অন্যতম সেরা প্লে মেকার আলী আশফাক।

এএফসি কাপের এ ম্যাচে করোনার প্রভাব নেই। এ রোগ নিয়ে সাবধানতা থাকলেও আতঙ্কে ভুগছেন না কেউই। টিসি স্পোর্টসের কোচ মোহাম্মদ শাজলি যেমন বললেন, তাদের করোনা নিয়ে ভাবার সময়ই নেই, ‘এটি সম্পর্কে আমরা সবাই সচেতন। তবে এসব নিয়ে ভাবার সময় নেই। কালকের ম্যাচটি নিয়েই ভাবছি। পরের রাউন্ডে যেতে হলে ম্যাচটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

টিসি স্পোর্টসের খেলছেন চার বিদেশি ফুটবলার—পাকিস্তানের হানিফ সাকিব, মিশরের সাঈদ মোহাম্মদ, এলজেজাই খলিল, ভিয়েতনামের ম্যালকম স্টুয়ার্ট। তবে এই দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার আলী আশফাক। উপমহাদেশের অন্যতম সেরা এই ফরোয়ার্ডকেও অবশ্য মজা করে বিদেশি হিসেবে উল্লেখ করলেন এই কোচ, ‘আলী আশফাক যদিও মালদ্বীপের ছেলে। কিন্তু ওকে আমি বিদেশি হিসেবেই গণ্য করি। যে কোনো ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা আশফাকের আছে।’

অবশ্য বসুন্ধরা কিংস কোচ অস্কার ব্রুজোন আলী আশফাককে নিয়ে মোটেও ভাবছেন না। বসুন্ধরার হাতে রয়েছে আরও বড় অস্ত্র, আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে খেলা হার্নান বার্কোস। লিওনেল মেসির সতীর্থকে উড়িয়ে আনা হয়েছে এএফসি কাপে খেলার জন্যই। তবে বার্কোস বা আলী আশফাকা কেউ নন। স্প্যানিশ কোচ ব্রুজোনের চোখে দানিয়েল কলিনদ্রেস হতে পারেন তুরুপের তাস, ‘এটা সত্যি বার্কোসকে পেয়ে আমাদের শক্তি বেড়েছে। কিন্তু বার্কোস নয় কলিনদ্রেসই এই ম্যাচের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার। সে বিশ্বকাপ খেলেছে। দুই দলের মধ্যে আমার চোখে সেরা ফুটবলার কলিনদ্রেস।’

অভিষেক ম্যাচেই জিততে চান অস্কার, ‘আমাদের এই দলটা বেশ ভারসাম্যপূর্ণ। স্থানীয় ও বিদেশি সবাই বেশ ভালো অবস্থায় আছে। আশা করি আমরা ঘরের মাঠের সুবিধা কাজে লাগিয়ে জয় দিয়ে এএফসি কাপ শুরু করতে পারব।’